নরসিংদী সদর উপজেলায় এক ব্যক্তির গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে উপজেলার নজরপুর ইউনিয়নের একটি বিদ্যালয়ের পেছন থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত মো. দুলাল মিয়া (৩৯) ওই গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন। তিনি পেশায় রাজমিস্ত্রি ছিলেন।

নিহত ব্যক্তির পরিবারের সদস্যরা বলেন, গতকাল সোমবার রাতে দুলাল মিয়া বাড়ি ফেরেননি। আজ সকালে নজরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পেছনে তাঁর গলাকাটা লাশ পাওয়া যায়। তাঁর কোনো শত্রু থাকার বিষয়ে পরিবার জানে না। তবে তাঁদের ধারণা, জমিসংক্রান্ত বিষয় নিয়ে কয়েকজনের সঙ্গে দুলালের বিরোধ চলছিল। সে কারণে এ হত্যাকাণ্ড হতে পারে কিন্তু সে বিষয়েও নিশ্চিত নন তাঁরা।

নরসিংদী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সওগাতুল আলম বলেন, আজ সকালে নজরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পেছনের খোলা মাঠে একটি গলাকাটা লাশ পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয় লোকজন। খবর পেয়ে দুলাল মিয়ার পরিবারের সদস্যরা গিয়ে লাশ শনাক্ত করেন। নরসিংদী মডেল থানায় খবর দিলে সকাল ৯টার দিকে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। সুরতহাল শেষে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ কর্মকর্তা সওগাতুল আলম বলেন, কী কারণে তিনি খুন হয়েছেন, তা জানতে নিহত ব্যক্তির পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলছে পুলিশ। দ্রুত এই হত্যাকাণ্ডের রহস্য উন্মোচিত হবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।