তবে কি গুনে গুনে দ্বিগুন বাড়ছে গ্যাসের দাম? একচুলা ৯২৫ টাকা থেকে বাড়িয়ে ২০০০ টাকা, দুই চুলা ৯৭৫ টাকা থেকে বাড়িয়ে ২১০০ টাকা করার প্রস্তাব করেছে বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড।

উচ্চমূল্যের এই প্রস্তাবটি সোমবার (১৭ জানুয়ারি) কমিশনে জমা পড়েছে, তা একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে নোয়াখালী, কুমিল্লা চাঁদপুর অঞ্চলে গ্যাস বিতরণের দায়িত্বে রয়েছে প্রতিষ্ঠানটি অন্যান্য প্রতিষ্ঠানগুলোকেও অভিন্ন প্রস্তাব জমা দিতে পেট্রোবাংলা থেকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে দুয়েকদিনের মধ্যে প্রস্তাব জমা পড়তে যাচ্ছে বলে সূত্রটি জানিয়েছে

বাখরাবাদ তাদের প্রস্তাবে আবাসিকে প্রিপেইড মিটার ব্যবহারকারী গ্রাহকদের প্রতি ঘনমিটারের বিদ্যমান মূল্য ১২.৬০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ২৭.৩৭ টাকা, সিএনজিপ্রতি ৩৫ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৭৬.০৪ টাকা, হোটেল-রেস্টুরেন্টে ২৩ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৪৯.৯৭ টাকা, ক্ষুদ্র কুটির শিল্পে ১৭.০৪ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৩৭.০২ টাকা, ১০.৭০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ২৩.২৪ টাকা, ক্যাপটিভ পাওয়ারে ১৩.৮৫ টাকা থেকে ৩০.০৯ টাকা করার প্রস্তাব করেছে অন্যদিকে বিদ্যুৎ সার কারখানায় থাকা বিদ্যমান দর .৪৫ টাকা থেকে বাড়িয়ে .৬৬ টাকা করার প্রস্তাব করা হয়েছে এছাড়া চা শিল্পে বিদ্যমান দর থেকে বাড়িয়ে ২৩.২৪ টাকা করার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে

গড় হিসেবে বিদ্যমান .৩৬ টাকা থেকে বাড়িয়ে ২০.৩৫ টাকা করার প্রস্তাব করা হয়েছে অতীতে কখনোই এতো বেশি পরিমাণে দাম বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়নি যে কারণে এই প্রস্তাবকে নজিরবিহীন বলে উল্লেখ করেছে কনজুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব)