চট্টগ্রামের চন্দনাইশে ভূমিদস্যু মোস্তাক আহমদ ও তার বাহিনীর বিরুদ্ধে জমি দখলের চেষ্টার  অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ ৬ অক্টোবর দুপুরে উপজেলার জোয়ারা ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের  মোহাম্মদপুর গ্রামে ভুক্তভোগীর নিজ বাড়িতে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে পাঠ করেন মো. নুরুল আবছার।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, তার সাথে প্রতিপক্ষ মোস্তাক গংয়ের খরিদকৃত জায়গা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। বিরোধের জের ধরে গত ২ অক্টোবর (শনিবার) দুপুরে মোস্তাক আহমদ ও তার লোকজন ঐ জায়গা তাদের খরিদা জায়গা দাবি করে বাউন্ডারি ওয়াল নির্মাণের চেষ্টা চালায়।

এ সময় তার স্ত্রী শাহনেওয়াজ আক্তার বাধা দিলে তাকে বেদম মারধর করে আহত করেন। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে চন্দনাইশ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

পরবর্তীতে এ ঘটনায় আহত শাহনেওয়াজ আক্তার বাদী হয়ে থানায় মোস্তাককে প্রধান আসামী করে ৫ জনের নাম উল্লেখপূর্বক অজ্ঞাতনামা ২-৩ জনকে আসামী করে একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

পরবর্তীতে অভিযোগের প্রেক্ষিতে ৮ জনকে আসামী করে নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়।

তিনি আরও বলেন, দায়ের করা মামলার আসামীগন জামিনে মুক্ত হয়ে আমি ও আমার পরিবারকে নানার রকম প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি-দমকি প্রদান করায় আমি ও আমার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।

এমতাবস্থায় প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

উক্ত সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন আরফা বেগম, শাহনেওয়াজ আকতার, জমির উদ্দিন, রোকেয়া আকতার, আমেনা বেগম, আয়শা আকতার, একরামুল হাছান প্রমুখ।