সৌদি আরবে প্রবাসী বাংলাদেশিদের ব্যবসা নিবন্ধনে সব ধরনের সহযোগিতা দেবে দেশটির সরকার। সেই সঙ্গে তাদের অর্থের উৎস সম্পর্কেও প্রশ্ন করবে না তারা।

বুধবার ( ২৯ সেপ্টেম্বর) সৌদির বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি ও বাণিজ্যিক গোপনীয়তা বিরোধী আইন জাতীয় কর্মসূচীর নির্বাহী পরিচালক আহমেদ বিন আলী আল সুয়াইলেম একথা জানান। রিয়াদে বাংলাদেশ দূতাবাস আয়োজিত ওয়েবিনারে যোগ দিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

সৌদি আরবে যেসব অভিবাসী অন্য নামে ব্যবসা করছেন তাদের বৈধভাবে ব্যবসা করতে হলে অবশ্যই দেশটির বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিবন্ধন করে বৈধতা নিতে হবে। রিয়াদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস এ তথ্য জানিয়েছে।

বাংলাদেশসহ অন্যান্য দেশের যেসব অভিবাসী সৌদি আরবে ব্যবসা-বাণিজ্য অথবা লাভজনক আর্থিক কার্যক্রমে জড়িত আছেন তাদের বাণিজ্যিক গোপনীয়তা বিরোধী আইনের আওতায় ২০২২ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নিবন্ধন করতে হবে। সৌদি সরকার একে ব্যবসা-বাণিজ্য সংশোধন এবং নিয়মিতকরণের সুযোগ হিসেবে দেখছে।

সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী এ সময় উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া জেদ্দাস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেটের কনসাল জেনারেল মোহাম্মদ নাজমুল হক, দূতাবাসের কর্মকর্তারা ও সৌদি আরবের বিভিন্ন প্রান্তে বসবাসরত বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা ওয়েবিনারে যোগ দেন।

রাষ্ট্রদূতের এক প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি আহমেদ বিন আলী আল সুয়াইলেম জানান, যেসব অভিবাসী ব্যবসায়ীরা ব্যবসা নিবন্ধনের জন্য আবেদন করবেন তাদের অর্থের উৎস সম্পর্কে প্রশ্ন করা হবে না। এছাড়া তারা যে ভিসায়ই কর্মরত থাকুক না কেন তাদের ভিসা সমস্যার ও সমাধান করা হবে। নিবন্ধন করলে তারা ব্যবসার মালিকানাসহ সব আইনগত সুবিধা পাবেন।

রাষ্ট্রদূতের আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, যে কোনো ব্যবসায়ী চাইলে তাদের অর্থ নিজ দেশে পাঠাতে পারবেন, এতে কোনো বাধা বা সীমা নেই, কেবল অর্থের উৎস দেখাতে হবে।

সভায় রিয়াদস্থ একজন বাংলাদেশি তার ব্যবসা পরিচালনা ও নিবন্ধন বিষয়ে সৌদি স্পন্সরের সঙ্গে সমস্যার কথা তুলে ধরলে তাকে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন আহমেদ বিন আলী আল সুয়াইলেম।

তিনি জানান, যে কোনো বাংলাদেশি ব্যবসা নিবন্ধনে সমস্যায় পড়লে তা সমাধানের জন্য সব সহযোগিতা নিশ্চিত করা হবে।

দূতাবাস বাণিজ্যিক গোপনীয়তা বিরোধী আইন বিষয়ে সৌদি প্রবাসী বাংলাদেশি ব্যবসায়ীদের সচেতন ও তাদের ব্যবসা নিবন্ধনে উদ্বুদ্ধ করার লক্ষ্যে নিয়মিত ওয়েবিনার, আলোচনা সভা, মতবিনিময়ের আয়োজন করছে।