দক্ষিন আফ্রিকার ডারবানে চলমান সহিংসতায় মাহাদা সারজান নামে দুইজন সোমালিয়ান নাগরিক প্রাণ হারিয়েছেন এবং আরো তিনজন সোমালিয়ান নাগরিক গুলিবিদ্ধ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। দক্ষিণ আফ্রিকায় আন্দোলনের নামে বিদেশিদের ব্যবসা প্রতিষ্টানে ভাংচুর লুটপাট করে যাচ্ছে স্থানীয়রা। তার মধ্যে অনেক বাংলাদেশিদের ব্যবসা প্রতিষ্টান রয়েছে। শত শত বাংলাদেশির দোকানপাট লুটপাট করা হয়েছে তারা এখন নিঃস্ব।

জ্যাকব জুমার মুক্তির দাবিতে আন্দোলনরত কৃষ্ণাঙ্গরা দোকান লুটপাট করতে আসলে নিহত সোমালিয়ান নাগরিকেরা তাদের বাঁধা দেয় এই সময় কৃষ্ণাঙ্গ আন্দোলনকারীদের গুলিতে দুইজন নিহত তিনজন গুলিবিদ্ধ হয়।

গতকাল গভীর রাতে জোহানেসবার্গের সয়েটোর প্রোটিয়া গ্ল্যান্ড মলে জুমার সমার্থকরা ভয়ানক ভাংচুর লুটপাট তান্ডব চালায়।

দক্ষিণ আফ্রিকার সরকার কোন ভাবেই আন্দোনকারিদের দমন করতে পারছে না , যা দিনে দিনে সারা দেশে ছড়িয়ে পড়ছে। এই আন্দোলনের কারণে দক্ষিণ আফ্রিকার অর্থনৈতিক অবস্থা ধ্বংস হচ্ছে পাশাপাশি বিদেশিরা ব্যবসা বাণিজ্যে বিপুল ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। 

গত কয়েকদিনে সাবেক প্রেসিডেন্ট জুমার মুক্তির দাবিতে কুয়াজুলু নাটাল, ঘাউটেং প্রিটোরিয়া,মাফিকিং সহ বিভিন্ন প্রভিন্সের শহরে জুমার অনুসারীরা বাংলাদেশীদের হাজারো ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ করেছে।